সুবর্ণচরে কবে কোথায় কিভাবে স্মার্ট কার্ড পাবেন

মহিব উল্যাহ মহিব

মহিব উল্যাহ মহিব

মার্চ ২৪ ২০২১, ১৮:২৩

ছবিঃ স্বাধীন বাংলা প্রতিদিন।

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে ইতিমধ্যে সুবর্ণচরে ৬টি ইউনিয়নে ভোটের আমেজ চলছে। নির্বাচন কমিশন ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রকল্পের অংশ হিসেবে দেশের বিভিন্ন স্থানে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করছেন। ই-ভোটিং সিস্টেম হওয়ায় ভোটারদের ভোট প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে স্মার্ট কার্ড। সুবর্ণচরে চরবাটা ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ করা হবে ইভিএম এর মাধ্যমে। ফলে প্রথম ধাপে চরবাটা ইউনিয়নে স্মার্টকার্ড বিতরণ করা হবে।

নাগরিকদের মধ্যে বহু প্রতীক্ষিত উন্নত মানের জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্ট কার্ড) বিতরণের কাজ শুরু হয়েছে অক্টোবর ২০১৬ সাল থেকে। এবারের স্মার্ট কার্ডে ব্যক্তির নাম (বাংলা ও ইংরেজি), পিতা/মাতার নাম, জন্মতারিখ ও জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন নম্বর দৃশ্যমান থাকবে।

কার্ডের পেছনে থাকবে ব্যক্তির ভোটার এলাকার ঠিকানা, রক্তের গ্রুপ ও জন্মস্থান। তবে সব মিলিয়ে স্মার্ট কার্ডের মধ্যে থাকা চিপ বা তথ্যভান্ডারে ৩২ ধরনের তথ্য থাকবে, যা মেশিনে পাঠযোগ্য হবে।

এবারের স্মার্ট কার্ডের সঙ্গে কাগজের তৈরি ল্যামিনেট করা বিদ্যমান কার্ডের বেশ কিছু পার্থক্য রয়েছে। প্লাস্টিকের (পলিমার দিয়ে) তৈরি কার্ডটি মজবুত ও দীর্ঘস্থায়ী হবে। কার্ডের মেয়াদ হবে ১০ বছর। নারীদের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কার্ডে স্বামীর নাম দৃশ্যমান ছিল। পিতার নাম ছিল না। অপরদিকে পুরুষের কার্ডে স্ত্রীর নাম উল্লেখ ছিল না। একে বৈষম্যমূলক বলে বলা হচ্ছিল। এবার নারীদের স্মার্ট কার্ডে স্বামীর নাম দৃশ্যমান থাকবে না। সেখানে পিতার নাম থাকবে।

কার্ডের তথ্যভান্ডারে ব্যক্তির পেশা, স্থায়ী ঠিকানা, বর্তমান ঠিকানা, বয়স, বৈবাহিক অবস্থা, জন্মনিবন্ধন নম্বর, লিঙ্গ, শিক্ষাগত যোগ্যতা, দৃশ্যমান শনাক্তকরণ চিহ্ন, ধর্ম, ড্রাইভিং লাইসেন্স নম্বর, পাসপোর্ট নম্বর, আয়কর সনদ নম্বর, টেলিফোন ও মোবাইল নম্বর, মা-বাবা ও স্বামী বা স্ত্রীর পরিচয়পত্র নম্বর, মা-বাবা বা স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যুসংক্রান্ত তথ্য, অসমর্থ বা প্রতিবন্ধীর তথ্য ইত্যাদি স্থান পেয়েছে। এ ছাড়া স্মার্ট কার্ডের ডিজাইনে বাংলাদেশের জাতীয় ফুল শাপলা, জাতীয় পাখি দোয়েল, জাতীয় স্মৃতিসৌধ ও চা-পাতা, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালীন ও বর্তমান জাতীয় পতাকা, জাতীয় সংগীত ইত্যাদি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। বিশ্বব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে প্রায় ৮০০ কোটি টাকা ব্যয়ে দেশের ৯ কোটি ভোটারকে স্মার্ট কার্ড দেওয়ার এই প্রকল্প গ্রহণ করা হয় ২০১১ সালে।

এর ধারাহিকতায় দেশের অন্যান্য জেলা উপজেলার ন্যায় নোয়াখালী জেলার সুবর্ণচর উপজেলায়তেও এ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয় গত ২৩ মার্চ সুবর্ণচর উপজেলা পরিষদ হলরুমে।    সুবর্ণচরে স্মার্ট কার্ড বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন

প্রথম ধাপে ২নং চরবাটা ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সম্ভাব্য সময়সূচী নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫ মার্চ ২০২১ খ্রিস্টাব্দ থেকে।

২৫ মার্চ ১,২,৩ নম্বর ওয়ার্ড, ২৭ মার্চ ৪ ও ৫ নম্বর ওয়ার্ড, ২৮ মার্চ ৬ ও ৭ নম্বর ওয়ার্ড, ২৯ মার্চ ০৮ নম্বর ওয়ার্ড, ৩১ মার্চ ০৯ নম্বর ওয়ার্ডে মোট ২১,৩৮২ জন ভোটারের মাঝে ২নং চরবাটা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত পুরুষ ও ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪ টা পর্যন্ত মহিলা ভোটারদের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে।

২নং চরবাটা ইউনিয়ন পরিষদে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সময়সূচী।

দ্বিতীয় ধাপে ১নং চরজব্বর ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র বিতরণ শুরু হবে ১ এপ্রিল থেকে।

১ এপ্রিল ১ নম্বর ওয়ার্ডে পুরুষদের মাঝে, ৩ এপ্রিল ১নম্বর ওয়ার্ডের মহিলাদের মাঝে, ৪ এপ্রিল ২ নম্বর ওয়ার্ড,  ৫ এপ্রিল ৩ নম্বর ওয়ার্ড, ৬ এপ্রিল ৪ নম্বর ওয়ার্ড, ৭ এপ্রিল ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড, ৮ এপ্রিল ৭ নম্বর ওয়ার্ড, ১২এপ্রিল ০৮ নম্বর ওয়ার্ড, ১৩ এপ্রিল ৯ নম্বর ওয়ার্ডে  মোট ২১,৩৮২ জন ভোটারের মাঝে ২নং চরবাটা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত পুরুষ ও ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪ টা পর্যন্ত মহিলা ভোটারদের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে।

ছবিঃ ১নং চরজব্বর ইউনিয়ন পরিষদে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সময়সূচী।

তৃতীয় ধাপে ৩নং চরক্লার্ক ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র বিতরণ শুরু হবে ১৫ এপ্রিল থেকে।

১৫ এপ্রিল ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড, ১৭ এপ্রিল ৩ ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড, ১৮ এপ্রিল ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড,  ১৯ এপ্রিল ৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ড, ২০ এপ্রিল ৯ নম্বর ওয়ার্ডে  মোট ২২,০০৪ জন ভোটারের মাঝে ৩নং চরক্লার্ক ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পুরুষ ও ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪ টা পর্যন্ত মহিলা ভোটারদের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে।

৩ নং চরক্লার্ক ইউনিয়ন পরিষদে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সময়সূচী।

চতুর্থ ধাপে ৪নং চরওয়াপদা ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র বিতরণ শুরু হবে ২১ এপ্রিল থেকে।

২১ এপ্রিল ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড, ২২ এপ্রিল ৩ , ৪ ও ৫ নম্বর ওয়ার্ড, ২৪ এপ্রিল ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড,  ২৫ এপ্রিল ৬ নম্বর ওয়ার্ড, ২৬ এপ্রিল ৭ নম্বর ওয়ার্ডে  মোট ১৫,৫৩৮ জন ভোটারের মাঝে ৪নং চরওয়াপদা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পুরুষ ও ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪ টা পর্যন্ত মহিলা ভোটারদের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে।

৪ নং চরওয়াপদা ইউনিয়ন পরিষদে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সময়সূচী।

পঞ্চম ধাপে ৫নং চরজুবিলী ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র বিতরণ শুরু হবে ২৭ এপ্রিল থেকে।

২৭ এপ্রিল ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড, ২৮ এপ্রিল ৩  নম্বর ওয়ার্ড, ২৯ এপ্রিল ৪ নম্বর ওয়ার্ড,  ২ মে ৫ নম্বর ওয়ার্ড, ৩ মে ৬,৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ড,৪ মে ৯ নম্বর ওয়ার্ড চরব্যাগা ও চরমহি উদ্দিন উত্তরাংশ, ৫ মে ৯ নম্বর ওয়ার্ডের চর জিয়াউদ্দিন সহ  মোট ৩৪,০৫৩ জন ভোটারের মাঝে ৫নং চরজুবিলী ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পুরুষ ও ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪ টা পর্যন্ত মহিলা ভোটারদের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে।

৫ নং চরজুবিলী ইউনিয়ন পরিষদে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সময়সূচী।

ষষ্ঠ ধাপে ৬নং চর আমানউল্যা ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র বিতরণ শুরু হবে ৬ মে থেকে।

৬ মে  ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড, ৮ মে ৩ ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড, ৯ মে ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড,  ১১ মে ৭,৮ ও ৯ নম্বর  ওয়ার্ডে মোট ১৫,০১৭ জন ভোটারের মাঝে ৬নং চরআমানউল্যাহ ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পুরুষ ও ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪ টা পর্যন্ত মহিলা ভোটারদের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে।

৬ নং চর আমানউল্লা ইউনিয়ন পরিষদে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সময়সূচী।

সপ্তম ধাপে ৭নং পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র বিতরণ শুরু হবে ১২ মে থেকে।

১২ মে  ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড, ১৭ মে ৩ ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড, ১৮ মে ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড,  ১৯ মে ৭ নম্বর ওয়ার্ড,২০ মে ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মোট ২৩,১২৭ জন ভোটারের মাঝে ৭নং পূর্ব চরবাটা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পুরুষ ও ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪ টা পর্যন্ত মহিলা ভোটারদের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে।

৭ নং পূর্ব চরবাটা ইউনিয়ন পরিষদে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সময়সূচী।

অষ্টম ধাপে ৮নং মোহাম্মদপুর ইউনিয়নে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্র বিতরণ শুরু হবে ২২ মে থেকে।

২২ মে  ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড, ২৩ মে ৩ ও ৪ নম্বর ওয়ার্ড, ২৪ মে ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড,  ২৫ মে ৭ নম্বর ওয়ার্ড, ২৭ মে ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মোট ১৮,৭১৫ জন ভোটারের মাঝে ৮নং মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে সকাল ৯ টা থেকে ১২ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পুরুষ ও ১২টা ৩০ মিনিট থেকে ৪ টা পর্যন্ত মহিলা ভোটারদের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হবে।

ছবিঃ ৮ নং মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন পরিষদে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের সময়সূচী।

সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাচন অফিসার বিমলেন্দু কিশোর পাল জানান, ‘‘২০০৮ সাল থেকে ২০১৬ সালের ভোটার এবং ২০১৯ সালের ভোটার বৃন্দ স্মার্ট কার্ড পাবেন । যারা উক্ত সময়ে ভোটার হয়েছেন তাদের কে অবশ্যই নির্ধারিত তারিখে নিজ নিজ ইউনিয়ন পরিষদের নির্ধারিত স্থানে স্ব-শরীরে উপস্থিত থেকে পূর্বের লেমোনিটিং আইডি কার্ড অথবা ভোটার স্লিপ জমা নিয়ে দশ আঙ্গুলের ছাপ ও চোখের মণির আরিশের ছবি তুলে জাতীয় স্মার্ট কার্ড প্রদান করা হবে।’’

যথাসময়ে কেউ উপস্থিত হতে না পারলে করণীয় জানতে চাইলে মিস্টার পাল জানান, ‘‘ সে ক্ষেত্রে ইউনিয়ন পর্যায়ে স্মার্ট কার্ড বিতরণ শেষ হলে স্ব শরীরে উপজেলা নির্বাচন অফিসে যোগাযোগ করে কার্ড সংগ্রহ করতে হবে।’’


শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০